Don't Miss
হোম / অর্থনীতি / সফল হতে হলে অবশ্যই ধৈর্য্যশীল হতে হবে: আশফাকুর রহমান

সফল হতে হলে অবশ্যই ধৈর্য্যশীল হতে হবে: আশফাকুর রহমান

সফল হতে হলে অবশ্যই ধৈর্য্যশীল হতে হবে: আশফাকুর রহমান

দেশের প্রথম শ্রেণির ক্যাবল কোম্পানিগুলোর মধ্যে আরআর কেবলস লিমিটেড অন্যতম। আশফাকুর রহমান আর আর কেবলসের পরিচালক হিসেবে কর্মরত আছেন। ব্যবসা সংক্রান্ত নানা বিষয় নিয়ে তিনি আমাদের সাথে কথা বলেন।

ব্যবসায় যাত্রা কবে ও কিভাবে শুরু হয়েছিল? জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার ক্যারিয়ার শুরু করি স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক দিয়ে। সাথে কেমিকেল ব্যবসার সাথেও জড়িত ছিলাম।

এছাড়াও আরো কিছু ব্যবসা করার চেষ্টা করেছিলাম কিন্তু বিভিন্ন কারণেই তা সম্ভব হয়ে উঠে নাই। পরবর্তীতে ইলেকট্রিক্যালস ও ক্যাবল ব্যবসা শুরু করি।

আমাদের কোম্পানির নাম আর আর ইমপেরিয়াল ইলেকট্রিক্যালস লিমিটেড। আমরা সবসময়ই গ্রাহকদেরকে ভালো মানের ক্যাবল দিয়ে থাকি।

কেননা ভালো মানের ক্যাবল না হলে বিভিন্নভাবে দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভবনা থাকে। আমাদের দেশে অনেক অগ্নিকান্ড হয় যার বেশিরভাগ ক্রুটির কারণ হিসেবে দেখা যায় যে নিম্নমানের ক্যাবল।

আমরা মানসম্মত ক্যাবল বাজারজাত করি। আমরা গুনগত মান এর কথা চিন্তা করেই কাজ করে থাকি। আমাদের ইচ্ছে আছে অদূর অবিষ্যতে বাংলাদেশের চাহিদা মিটিয়ে ক্যাবল সামগ্রী বিদেশে রপ্তানি করবো।

একজন সফল ব্যবসায়ী হতে হলে যে গুণগুলো থাকা দরকার, তার মধ্যে ধৈর্য্য অন্যতম। যে কোনো কাজের জন্য ধৈর্য্য থাকতে হবে।

জ্ঞানের পরিধি বাড়াতে হবে। মার্কেট সম্পর্কে ধারণা রাখতে হবে। কোন ব্যবসায়ী একদিনে সফল হতে পারেনি। একদিনে সম্ভবও না। পর্যায়ক্রমে পরিকল্পনা করে কাজে অগ্রসর হতে হবে।

ধৈর্য্য নিয়ে লেগে থাকাটা সঠিক সিদ্ধান্ত। গুনগত মানসম্মত পণ্য বাজারজাত করতে হবে। গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি প্রাধান্য দিতে হবে।

ভালো মানের পণ্য রাখতে হবে। অনেক সময় দেখা যায় যে, মার্কেট সম্পর্কে ধারণা না নিয়ে দশজনের দেখাদেখি ব্যবসা করার জন্য অনেকেই ঝাপ দেয়। এটা তরুণ প্রজন্মর ক্ষেত্রে অনেকটা বেশি দেখা যায়।

কোন কিছু করার আগে চিন্তা করতে হবে এটি আমি করতে পারবো কিনা, লাভ কি রকম ইত্যাদি বিভিন্ন বিষয় চিন্তভাবনা করে মাঠে নামতে হবে।

এটা আমার ক্ষমতার মধ্যে আছে কিনা সেটা বিবেচনা না করেই ব্যবসা শুরু করে দেই এবং কিছুদিন পর দেখা যায় লোকশান হচ্ছে তখন মুখ ফিরিয়ে নেই।

তরুণদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তোমরা যারা ব্যবসায় আসতে চাও, তাদের উদ্দ্যশ্যে বলবো, যে ব্যবসাই করতে চাও না কেন, সেক্ষেত্রে মার্কেট রিসার্চ করে ব্যবসা শুরু করতে হবে।

বাংলাদেশের তরুণদের জন্য আমার পরামর্শ হচ্ছে মনে জোর থাকতে হবে এবং ধৈর্য্য শক্তি থাকতে হবে। নিজেকে প্রশ্ন করতে হবে আমি কি করতে চাই।

কি ভালো লাগে। নিজের ইচ্ছে শক্তির প্রতি গুরুত্ব দিতে হবে। তরুণরা নতুন কিছু আইডিয়া নিয়ে কাজ করছে। টেকনোলোজি নিয়ে কাজ করছে আজকের তরুণ প্রজন্ম।

সফল ব্যক্তিদের সাথে সমসাময়িক ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করতে হবে। তারা কিভাবে সফল হয়েছে জানারর চেষ্টা করতে হবে।

আমরা সব সময় বিজয়ের গল্প শুনি, হেরে যাওয়া গল্প শুনি না। হেরে যাওয়ার গল্পও শুনতে হবে এবং এই পরিস্থিতি সফল ব্যক্তিরা কিভাবে অতিক্রম করেছেন সেসব বিষয় শুনতে হবে।

তরুণদেরকে সবসময় সৃষ্টিশীল হতে হবে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে নিজেদের চিন্তাধারাও পরিবর্তন করতে হবে।

উত্তর দিন

মন্তব্য করুন!

  Subscribe  
এর রিপোর্ট করুন