Don't Miss
হোম / জাতীয় / রাবিতে র‌্যাগ দেওয়ার অভিযোগে শিক্ষার্থীকে পুলিশে সোপর্দ

রাবিতে র‌্যাগ দেওয়ার অভিযোগে শিক্ষার্থীকে পুলিশে সোপর্দ

রাবিতে র‌্যাগ দেওয়ার অভিযোগে শিক্ষার্থীকে পুলিশে সোপর্দ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি)  র‌্যাগ দেওয়ার অভিযোগে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে পুলিশে দেয়া হয়েছে।

রোববার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রপ সায়েন্স বিভাগের ওই শিক্ষার্থীকে পুলিশে দেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান।

তবে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ ও পুলিশ দাবি করছে ওই শিক্ষার্থী শিবিরের রাজনীতির সাথে জড়িত।

আটক আল আমিন হৃদয় ক্রপ সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি বিভাগের ১ম বর্ষের (পুরাতন) শিক্ষার্থী। তিনি গত বৃহস্পতিবার বিভাগের নবীন শিক্ষার্থী ফাহাদ বিন ইসমাইলকে র্যাৃগ দেবার ঘটনার সাথে জড়িত ছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রোববার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদে আল আমিনকে দেখতে পেয়ে কয়েকজন ছাত্রলীগ তাকে আটক করতে গেলে সে একটি কক্ষে অবস্থান নেয়। পরে বিভাগের শিক্ষকদের হস্তক্ষেপে তাকে শিক্ষকদের কক্ষে নিয়ে যাওয়া হয়। এসময় খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু কৃষি অনুষদের সামনে গেলে ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ওই শিক্ষার্থীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, ‘শিবির সন্দেহে নয়। ওই শিক্ষার্থীর উপর নির্যাতন বন্ধের লক্ষ্যেই তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।’

তবে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বলেন, ‘হৃদয়ের নামে এর আগেও নাশকতা মামলা আছে। সে গ্রেপ্তারও হয়েছিলো। পত্রিকায় সে সংবাদও প্রকাশিত হয়েছিলো। তাকে শিবির হিসেবেই পুলিশে দেয়া হয়েছে।’

তবে ক্রপ সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘ওই শিক্ষার্থীকে পুলিশে না দিলে তাকে প্রচুর মারধর করা হতো। তাই পুলিশে দেয়া হয়েছে। তাকে কোন রাজনৈতিক দলের সদস্য হিসেবে পুলিশে দেয়া হয়নি।’

যদিও মতিহার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান বলেছেন, ‘শিবির হিসেবেই হৃদয়কে তারা আটক করেছেন।’

এদিকে শিক্ষার্থীদের উপর র্যা গিং বন্ধ ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে এ বিষয়ে কঠোর প্রদক্ষেপ নেয়ার দাবিতে রোববার বেলা ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়েল কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে মানববন্ধন করেছে স্টুডেন্ট রাইটস অ্যাসোসিয়েশন।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে র্যাসগিং বৈধ নয় উল্লেখ করে সংগঠনটির উপদেষ্টা রাবি লিগ্যাল সেলের প্রশাসক অধ্যাপক শাহীন জোহুরা বলেন, ‘নবীন শিক্ষার্থীদের প্রতি অমানবিক আচরণ কাম্য নয়। তাদের প্রতি আমাদের এমন আচরণ হতে হবে যাতে তাদের কোন শারিরীক ও মানসিক ক্ষতি না হয়।’

এ সময় তিনি এ বিষয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সচেতন হতে এবং এসব কর্মকাণ্ডে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।

অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী জাবেদুল ইসলাম মনির সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন স্টুডেন্ট রাইটস অ্যাসোসিয়েশনের আহ্বায়ক কেএএম সাকিব বলেন, সদস্য সচিব ফজলে রাকিব কামাল, বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী মাহাযারুল ইসলাম রকি, আইন বিভাগের শিক্ষার্থী মো. রোকনুজ্জামান, মনজু শিকদার প্রমুখ।

উত্তর দিন

মন্তব্য করুন!

  Subscribe  
এর রিপোর্ট করুন