Don't Miss
হোম / জাতীয় / ফেসবুকে প্রশ্নপত্র, মন্ত্রী বললেন মেলেনি

ফেসবুকে প্রশ্নপত্র, মন্ত্রী বললেন মেলেনি

ফেসবুকে প্রশ্নপত্র, মন্ত্রী বললেন মেলেনি

ব্যাপক কড়াকড়ির মধ্য দিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সারা দেশে শুরু হয়েছে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি), দাখিল ও এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষা। অভিযোগ উঠেছে, এমন কড়াকড়ির মধ্যেও পরীক্ষা শুরুর আগমুহূর্তে অন্যান্য বছরের মতো ফেসবুকে প্রশ্নপত্র ছড়িয়ে পড়ে।

যদিও শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, ফেসবুকে ছড়ানো ওই প্রশ্নপত্রের সঙ্গে পরীক্ষার মূল প্রশ্নপত্রের মিল নেই।

গতকাল আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে এসএসসিতে বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষা হয়েছে। এবার পরীক্ষা শুরুর আধা ঘণ্টা আগেই পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্রে প্রবেশে বাধ্যবাধকতা আরোপ করা হয়েছে। প্রশ্নপত্রের মোড়ক আধা ঘণ্টা আগে খোলার নিয়ম নেই। অভিযোগ উঠেছে, পরীক্ষা শুরুর আধা ঘণ্টার সামান্য আগে-পরে প্রশ্নপত্র একাধিক ফেসবুক গ্রুপে পাওয়া যায়। এর মধ্যে ‘খ’ সেট নামে ছড়ানো প্রশ্নপত্রের এমসিকিউ অংশের ঝাপসা একটি কপির সঙ্গে মূল প্রশ্নের বেশ কিছু মিল দেখা যায়। যদিও কপিটি ঝাপসা থাকায় সব প্রশ্ন ভালোভাবে দেখা যায় না। ম্যাসেঞ্জারে ছড়ানো ‘খ’ নামে আরেকটি সেটের সঙ্গে মূল প্রশ্নের মিল পাওয়া যায়নি।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা প্রথম আলোকে বলেন, এবার দুটি অভিযোগের কথা তাঁদের কাছে আসে। প্রথমটি পরীক্ষা পরিদর্শনের সময় শিক্ষামন্ত্রীর কাছে আসে। পরে সেখানে কোনো মিল পাওয়া যায়নি। আরেকটি অভিযোগ আসে মন্ত্রণালয়ের কাছে, যেখানে বলা হয় পরীক্ষা শুরুর কিছু আগে প্রশ্নপত্র পাওয়া গেছে।

শিক্ষামন্ত্রী গতকাল পরীক্ষা দেখতে ঢাকায় ধানমন্ডি গবর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি উচ্চবিদ্যালয়ে যান। সেখানে পরীক্ষা শুরুর কিছুক্ষণ পর এক সাংবাদিক মন্ত্রীকে পরীক্ষা শুরুর আগে ফেসবুকে ছড়ানো ‘খ’ সেটের প্রশ্নপত্রের একটি অনুলিপি দেখান। পরে শিক্ষামন্ত্রী কেন্দ্রের দায়িত্বরত ব্যক্তিদের নিয়ে ওই অনুলিপি মূল প্রশ্নপত্রের সঙ্গে মিলিয়ে দেখেন। এরপর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ওই প্রশ্নের সঙ্গে কোনো মিল নেই। তবে দেখতে হুবহু প্রশ্নের মতোই। প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে প্রমাণিত হলে সঙ্গে সঙ্গে পরীক্ষা বাতিল।

পরীক্ষার প্রথম দিনে ৯ হাজার ৭৪২ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল। আর অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে ২৬ পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। সারা দেশে মোট ৩ হাজার ৪১২টি কেন্দ্রে পরীক্ষা হচ্ছে।

উত্তর দিন

মন্তব্য করুন!

  Subscribe  
এর রিপোর্ট করুন