Don't Miss
হোম / জাতীয় / কর্ণফুলীর তলদেশে টানেল বোরিং শুরু হবে সেপ্টেম্বরে

কর্ণফুলীর তলদেশে টানেল বোরিং শুরু হবে সেপ্টেম্বরে

কর্ণফুলীর তলদেশে টানেল বোরিং শুরু হবে সেপ্টেম্বরে

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে কর্ণফুলী নদীর তলদেশে নির্মিতব্য দেশের প্রথম টানেলের বোরিং কাজ শুরু হবে আগামী সেপ্টেম্বরে। ইতিমধ্যে তৈরি হওয়া বোরিং মেশিনটি আগামী মে মাসে চীন থেকে বাংলাদেশে নিয়ে আসা হবে।

অন্যদিকে চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে কক্সবাজার পর্যন্ত রেলসেবা পৌঁছে যাবে। প্রশ্নোত্তর পর্বে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও রেলপথমন্ত্রী মো.মুজিবুল হক এসব তথ্য জানান। এছাড়া ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের দূরত্ব ৯০ কিলোমিটার কমে যাবে বলেও এই দিন সংসদকে জানানো হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, ‘প্রকল্পটির আওতায় নির্মিতব্য রেলপথ ঢাকা থেকে দাউদকান্দি হয়ে কুমিল্লা প্রবেশ করবে এবং ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের বর্তমান দূরত্ব ৩২১ কিলোমিটার থেকে কমে ২৩১ কিলোমিটার হবে। এর ফলে ঢাকা-চট্টগ্রামে রেল ভ্রমণের সময় অনেকাংশে হ্রাস পাবে।’

কর্ণফুলীর টানেলের ব্যাপারে এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের দেয়া তথ্যানুযায়ী বোরিং মেশিনটি স্থাপনে কমপক্ষে তিন মাস লাগবে। তিনি বলেন, ‘ইতিমধ্যে প্রকল্প এলাকায় ঠিকাদারের ক্যাম্প, আবাসন ও ব্যাচিং প্ল্যান্ট, গভীর নলকূপ স্থাপনের কাজ সম্পন্ন হয়েছে।’ এর আগে ২০১৪ সালের জুনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চীন সফরকালে এই টানেল নির্মাণে সেদেশের সরকারের সঙ্গে সমঝোতা চুক্তি হয়। পরবর্তী বছরের জুনে চীন সরকারের মনোনীত প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে বাণিজ্যিক চুক্তি করে বাংলাদেশ। একই বছরের ২৪ নভেম্বর প্রকল্পটি জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদে (একনেক) অনুমোদিত হয়। সড়ক পরিবহনমন্ত্রী আরো জানান, ঋণচুক্তিতে চীন সরকারের কাছ থেকে পাওয়া প্রথম কিস্তির ১৪১ দশমিক ১৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার গত ডিসেম্বরে ঠিকাদারকে দেয়া হয়েছে।

উত্তর দিন

মন্তব্য করুন!

  Subscribe  
এর রিপোর্ট করুন