Don't Miss
হোম / খেলাধুলা / তুষারের বিশ্বাস, সুযোগ পেলে তিনিও ভালো করবেন

তুষারের বিশ্বাস, সুযোগ পেলে তিনিও ভালো করবেন

তুষারের বিশ্বাস, সুযোগ পেলে তিনিও ভালো করবেন

হয়তো ভুল ধারণা থেকেই দীর্ঘ সময় জাতীয় দলের বাইরে রাখা হয়েছে আব্দুর রাজ্জাককে। প্রায় চার বছর তার সার্ভিস থেকে বঞ্চিত হয়েছে বাংলাদেশ। অনেকের ধারণা ছিল, রাজ্জাক বুড়ো হয়ে গেছে, সে আর চলেনা। হয়তো এমন ধারণা থেকেই তাকে জাতীয় দলের বাইরে রাখা।

চার বছর পর টেস্ট দলে ফিরে ক্যারিয়ার সেরা বোলিং করলেন ৩৫ বছর বয়সী এই বাঁহাতি স্পিনার। শ্রীলংকার বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে তুলে নিয়েছেন ৪ উইকেট। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ৫০০ উইকেট শিকারের কীর্তি গড়ার পর হঠাৎ করেই জাতীয় দলে ডাক আসে আব্দুর রাজ্জাকের।

রাজ্জাকের মতো প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে প্রথম বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান হিসেবে ১০ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন তুষার ইমরান। ৩৪ বছর বয়সী তুষারের বিশ্বাস রাজ্জাকের মতোতিনিও জাতীয় দলে সুযোগ পেলে ভালো করবেন। যুগান্তরের সঙ্গে একান্ত আলাপে এমনটিই বলছেন যশোরের এই ক্রিকেটার।

হয়তো অনেকেই বলে থাকেন, তুষার ইমরান ফুরিয়ে গেছেন। জাতীয় দলকে দেয়ার মতো তার আর কিছু নেই। তবে ৩৪ বছর বয়সী তুষার বলছেন ভিন্ন কথা, বয়সের সঙ্গে সঙ্গে অভিজ্ঞতাও বাড়ে।

ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে রাজ্জাকের পারফরম্যান্স নিয়ে বলেন, ও আজ ৪টা উইকেট পেয়েছে। এটা ওর চেয়ে দলের জন্য অনেক ভালো দিক। তাদের সুযোগ দেয়া উচিত।

জাতীয় দলের হয়ে মাত্র ৫ টেস্ট খেলা তুষার বলেন, সুযোগের অপেক্ষায় আছি। আমার কাছে মনে হয়, এখনও আমার সামনে সুযোগ আছে। যে কোন দিন জাতীয় দলে ডাক চলে আসতে পারে।

দীর্ঘদিন পর রাজ ভাই ফিরেছে। সুযোগ কাজে লাগিয়েছে। আমার বিশ্বাস আমিও যদিসুযোগ পাই,তাহলে ভালো করতে পারব। আমি নিজেও জাতীয় দলে কামব্যাক করার চেষ্টা করছি।

টেস্টে বাংলাদেশের উন্নতি নিয়ে তুষার বলেন, আমার কাছে মনে হয়, দেশে আমরা যেভাবে খেলছি ,এটা সত্যিই উন্নতি হয়েছে। তবে এই পারফরম্যান্সের ধারবাহিকতা আমরা যদি বিদেশের মাঠে অব্যাহত রাখতে পারি, তাহলে বিশ্ব ক্রিকেটে আমাদের কদর বাড়বে।

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১০ হাজার রান এবং ৫০০ উইকেট শিকার করার সুবাদে ত্রিদেশীয় সিরিজ চলা অবস্থায় তুষার ইমরান এবং আব্দুর রাজ্জাককে সম্মানিত করে জাতীয় দল। সতীর্থ ক্রিকেটারদের কাছ থেকে পাওয়া সেই সম্মান নিয়ে তুষার বলেন, আমার কাছে মনে হয় অনেক বড় একটা অ্যাচিভমেন্ট পেয়েছি। দেশসেরা ক্রিকেটারদের কাছ থেকে সম্মান পাওয়া আসলে অন্যরকম একটা ফিলিংস।

তুষার বলেন, এই সম্মাননা যদি ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে পেতাম তাহলে আরও ভালো লাগত। হয়তো ওনারা দেবেন। সেই আশায় আছি। সরাসরি না দিলেও অনেকে মুখে মুখে আমাদের অভিনন্দন জানিয়েছেন। তবে মাইলফলক অর্জন করা ক্রিকেটারদের সম্মান দিলে তরুণরা উৎসাহিত হবে।

উত্তর দিন

মন্তব্য করুন!

  Subscribe  
এর রিপোর্ট করুন