Don't Miss
হোম / খেলাধুলা / জিততে হলে টাইগারদের রেকর্ড গড়তে হবে

জিততে হলে টাইগারদের রেকর্ড গড়তে হবে

জিততে হলে টাইগারদের রেকর্ড গড়তে হবে

টি-টোয়েন্টি সিরিজে ড্র করতে হলে ইতিহাস গড়তে হবে বাংলাদেশকে। শ্রীলংকার বিপক্ষে জয় পেতে হলে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদদের করতে হবে ২১১ রান। অথচ টি-টোয়েন্টির ইতিহাসে এখনও বাংলাদেশ দু’শো রানের কোটা অতিক্রম করতে পারেনি। ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে গত ম্যাচে মিরপুরে করা ১৯৩ রানই টাইগারদের সর্বোচ্চ।

টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে চার উইকেটে ২১০ রান সংগ্রহ করে সফরকারীরা। লংকানদের হয়ে সর্বোচ্চ ৭০ রান করেন ওপেনার কুশল মেন্ডিস। এছাড়া ৪২ রান করেন অন্য ওপেনার গুনাথিলাকা।

অবশ্য শ্রীলংকাকে ব্ড় স্কোর গড়তে মাহমুদউল্লাহরাই সহযোগিতা করেছে। ইনিংসের শুরুও ওভারে লংকানদের আটকে রাখার সুযোগ পেয়েও তা হাতছাড়া করে টাইগাররা। একে একে তিনবার ক্যাচ মিস করায় লংকানদের রান সংগ্রহের লাগাম ধরে রাখতে পারেনি বাংলাদেশ।

৮, ১৫ এবং ২৮ রানে নতুন জীবন পেয়ে ৪২ রানে ফেরন গুনাথিলাকা। তার চেয়ে বড় বিষয় হলো উদ্বোধনীতে কুশল মেন্ডিসকে সঙ্গে নিয়ে ৯৮ রানের জুটি গড়ে দলকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন গুনাথিলাকা। লংকান এই ওপেনারকে ফেরান সৌম্য সরকার। এরপর থিসেরা পেরেরাকে নিয়ে ব্যাটিং তাণ্ডব অব্যাহত রাখেন কুশল। ১৭ বলে ৩১ রান করা পেরেরাকে সাজঘরে পাঠান আবু জায়েদ রাহী। অবশ্য তার আগে দ্বিতীয় উইকেটে ৫১ রান যোগ করে যান পেরেরা। এরপর কুশল মেন্ডিসকে সাজঘরে পাঠান মোস্তাফিজুর রহমান।

ইনিংসের শুরু থেকে অসাধারণ ব্যাটিং করে যাওয়া লংকান এই ওপেনার আউট হওয়ার আগে ৪২ বলে ৭০ রান করে যান। ইনিংস শেষ হওয়ার ঠিক দুই বল আগে ফিরেন উপল থারাঙ্গা। তার আগেই শ্রীলংকা চলে যায় ধরা ছোয়ার বাইরে। বাংলাদেশ দলের হয়ে রাহী, সৌম্য, মোস্তাফিজ ও সাইফউদ্দিন চার উইকেট ভাগাভাগি করে নেন।

উত্তর দিন

মন্তব্য করুন!

  Subscribe  
এর রিপোর্ট করুন