Don't Miss
হোম / খেলাধুলা / রাশিয়ায় স্পেনের ভয়!

রাশিয়ায় স্পেনের ভয়!

রাশিয়ায় স্পেনের ভয়!

এবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ। ইউরোপা লিগ জিতেছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। বিশ্বকাপের ঠিক আগে ইউরোপের ক্লাব ফুটবলে স্প্যানিশ দলগুলোর এমন জয়জয়কার স্পেন জাতীয় দলের জন্য শুভবার্তাই হওয়া উচিত।

স্পেনের বিশ্বকাপ দলে আছেন রিয়ালের ছয় খেলোয়াড়। কিন্তু স্পেনের যে সমর্থকরা কুসংস্কারে বিশ্বাস করেন, রিয়ালের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় নিশ্চিতভাবেই তাদের কাছে অশুভ বার্তা নিয়ে এসেছে। ইতিহাস যা বলছে, তাতে রাশিয়া বিশ্বকাপে স্পেনের ভরাডুবি নিশ্চিত!

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের অভিশাপ বলে কথা! বিশ্বকাপ বা ইউরোর বছরে যতবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছে কোনো স্প্যানিশ ক্লাব, প্রতিবারই শূন্য হাতে ফিরতে হয়েছে স্পেন জাতীয় দলকে। ২০০৮, ২০১০ ও ২০১২ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে স্প্যানিশ ক্লাবগুলোর ব্যর্থতার বিপরীতে টানা দুটি ইউরো ও একটি বিশ্বকাপ জিতেছে স্পেন।

১৯৬৪ সালে স্পেনের প্রথম ইউরো জয়ের বছরে ইউরোপিয়ান কাপের ফাইনালে হেরেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। এটিকে ব্যতিক্রম ধরলে বিশ্বকাপ ও ইউরোর বছরে যে বাকি ১৫ বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ছিল লা লিগার কোনো ক্লাব, একবারও কোয়ার্টার ফাইনালের বেশি এগোতে পারেনি স্পেন।

পুরো ব্যাপারটিকে কাকতালীয় ভেবে উড়িয়ে দিলে আরেকটি বিস্ময়ের মুখোমুখি হতে হবে। শেষ পাঁচটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগই জিতেছে কোনো স্প্যানিশ ক্লাব। ইউরোপা লিগেও শেষ সাতটি শিরোপার পাঁচটিই এসেছে স্পেনে। ক্লাব ফুটবলে স্প্যানিশদের এমন একাধিপত্যের যুগেই কিনা আন্তর্জাতিক ফুটবলে পতন ঘটেছিল স্পেনের!

২০১২ ইউরো জয়ের পর ক্রমেই বিবর্ণ হতে থাকে লাল। ২০১৪ বিশ্বকাপে গ্রুপপর্ব থেকে অভাবনীয় বিদায়ের পর ২০১৬ ইউরোতেও শেষ ষোলোর বেশি এগোতে পারেনি লা রোহারা। তবে হুলেন লোপেতে গুই কোচের দায়িত্ব নেয়ার পর গত দু’বছরে আবারও ভীতিজাগানিয়া একদল হয়ে উঠেছে স্পেন।

আসন্ন রাশিয়া বিশ্বকাপে শিরোপার অন্যতম বড় দাবিদার ভাবা হচ্ছে তাদের। তবে গত আসরের তিক্ত অভিজ্ঞতা মাথায় রেখে এবার আÍতুষ্টির ফাঁদে পা দিতে নারাজ লোপেতে গুই, ‘যখন জিতবেন তখন ফেভারিট খেতাবটা আপনি অর্জন করবেন। অতীতের অর্জনের কারণে মানুষ আপনাকে ফেভারিট বললেই আপনি ফেভারিট হয়ে যাবেন না। মাঠেই নিজেকে প্রমাণ করতে হয়।’

২০০৮ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত একটি অনন্য ও ঐতিহাসিক স্বর্ণযুগ পার করেছে স্প্যানিশ ফুটবল। কিন্তু এরপর সেই ধারাবাহিকতা বা সাফল্য ধরে রাখা যায়নি। ফলে আবার একটি দল হয়ে উঠতে নতুন করে সব শুরু করতে হয়, ‘সর্বোচ্চ আকাক্সক্ষা নিয়েই আমরা রাশিয়ায় যাচ্ছি। কিন্তু এটাও আমরা জানি, মাটিতে পা রেখে এগোতে হবে। নিজেদের প্রমাণ করতে হবে। খুব বেশি দূরে তাকানো ঠিক নয়। বিশ্বকাপ জিততে হলে, আপনাকে ধাপে ধাপে এগোতে হবে।

উত্তর দিন

মন্তব্য করুন!

  Subscribe  
এর রিপোর্ট করুন